একজন অক্ষয়ের গল্প

  ৯, সেপ্টে ২০১৪  |    Online Desk, মিডিয়াকথা  |    794

অমৃতসরের রাজীব ভাটিয়া আজ বলিউডের ‘বস’৷ ১৯৬৭ সালের ৯ সেপ্টেম্বর শুভ জন্মদিন সুপারস্টার অক্ষয় কুমারের৷ ১৯৯১ সাল থেকে বলিউডে যাত্রা শুরু তাঁর৷  জন্মদিনের শুভ মুহুর্তে উত্থান-পতনের মধ্যে দিয়ে ফিল্মী কেরিয়ারে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত নায়ক হিসাবে গড়ে তোলার সেই ইতিহাস৷

১৯৯১ সালে প্রথম ক্যামেরার সামনে আসেন বি-টাউনের ফেমাস স্টার অক্ষয় কুমার৷ ‘সুগন্ধ’ মুভিতে রাখি আর সান্তাপ্রিয়ার সঙ্গে বড় পর্দায় আত্মপ্রকাশ৷ হিন্দী চলচিত্রের অন্যতম সেরা পরিচালক মহেশ ভাটের মারাঠী ছবিতেও কাজ করেছেন তিনি৷ আব্বাস মস্তান পরিচালিত সাসপেন্স থ্রিলার ‘খিলারী’ দিয়ে ১৯৯২ সালে বি-টাউনে পায়ের তলার মাটি শক্ত হয় আক্কির৷ ১৯৯৪ সালে যশ চোপড়া পরিচালিত ‘ইয়ে দিল্লাগি’-তে কাজল, সইফের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করে প্রথমবার ফিল্ম ফেয়ারের পক্ষ থেকে সেরা অভিনেতার জন্য মনোনিত হন৷ সেই বছর ১২টি ছবিতে অভিনয় করেন অক্ষয়৷ অন্যান্য হিট মুভির তালিকায় রয়েছে ‘মোহরা’, ‘সুহাগ’, ‘এলান’, ম্যায় খিলারি তু আনারি’-র মতো বেশ কিছু ছবি৷

১৯৯৫ সালে ব্যবসায়িক দিক থেকে সফল হয়েছিল আক্কি অভিনীত অ্যাকশান থ্রিলার ‘সবসে বড়া খিলারী’৷ যশ চোপড়া পরিচালিত সুপারহিট মুভি ‘দিল তো পাগল হ্যায়’-তে বি-টাউনের প্রথমসারির তারকা মাধুরী, শাহরুখ, করিশ্মার সঙ্গে কাজ করেন৷ এই ছবিতে পার্শ্বচরিত্রে অভিনয়ের জন্য ফিল্ম ফেয়ারের পক্ষ থেকে সেরা পার্শ্বচরিত্রের জন্য মনোনিত হন৷ কিন্তু এরপর ‘সংঘর্ষ’, ‘জানোয়ার’ বক্স অফিসে সেভাবে সাড়া ফেলতে পারেনি৷

২০০০ থেকে ২০০৬ সালের মধ্যে আক্কির ঝুলিতে আসে বেশ কিছু হিট ছবি৷ এই তালিকায় রয়েছে কমেডি মুভি ‘হেরা ফেরি’, রোমান্টিক ড্রামামুভি ‘ধরকন’, ‘খিলারী ৪২০’,৷ ২০০১ সালে সুনীল দর্শন পরিচালিত ‘এক রিস্তা’-য় অক্ষয়ের অভিনয়  মনকেরেছিল পরিচালক সহ দর্শকের৷ সেই বছরই মুক্তি পায় আব্বাস মস্তান পরিচালিত ‘আজনবি’৷ এই ছবিতে ভিলেনের ভূমিকায় দুর্দান্ত পারফরমেন্সের জন্য প্রথমবার ফিল্ম ফেয়ারের পক্ষ থেকে সেরা ভিলেনের পুরস্কার পান৷ ডেভিড ধাওয়ান পরিচালিত রোমান্টিক কমেডি মুভি ‘মুঝসে শাদি করোগি’-তে সানির চরিত্রে অভিনয়ের জন্য ফিল্মফেয়ারের পক্ষ থেকে তৃতীয়বার সেরা পার্শ্বচরিত্রের জন্য মনোনয়ন পান৷

২০০৭ সালে ক্যাটরিনা কাইফের সঙ্গে ‘নমস্তে লন্ডন’-এ জুটি বাঁধেন অক্ষয়৷ এই বছরে মুক্তি প্রাপ্ত ‘ওয়েলকাম’, ‘ভুলভুলাইয়া’-য় তাঁর অভিনয় খুবই প্রশংসীত হয়৷ ২০০৯- সালে অক্ষয়ের বকক্স অফিস রেকর্ড খুব একটা ভালে ছিল না৷ ‘চাঁদনি চক টু চায়না’, ‘কমবক্ত ইসক’, ‘ব্লু’ একের পর এক মুখ থুবরে পড়েছে বক্স অফিসে৷ তবে ২০১০ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত কমেডি মুভি ‘হাউসফুল’ দর্শকের মন জয় করে৷ কিন্তু ঐশ্বর্য্য রাই বচ্চনের সঙ্গে ‘অ্যাকশান রিপ্লে’ আবার চলে আসে ফ্লপের তালিকায়৷

২০১২ সালে কমেডি মুভি হাউসফুলের সিক্যুয়েলে তৈরি ‘হাউসফুল টু’ সাকসসেস হয় বক্স অফিসে৷ বলিউড ডিভা সোনাক্ষী সিনহার সঙ্গে ‘ রাউডি রাথোর’-এ জুটি বাঁধলে মোটামুটি পছন্দ হয় দর্শকের৷ এই বছরে অক্ষয় অভিনীত ‘ ও মাই গড’ যা বক্স অফিস হিট মুভি বলা যেতেই পারে৷ ২০১২ সালে সেকরম কোনো হিট ছবিতে কাজের সুযোগ পান নি৷ সোনাক্ষীর সঙ্গে ২০১৪ সালে ‘হলিডে’ ছবি দিয়ে বলিউডে নিজের জায়গা তৈরি করেন অক্ষয়৷ নীরজ পান্ডে পরিচাললিত আগামী ছবি ‘বেবি’-তে ডেবিউ অভিনেত্রী মধুরিমার সঙ্গে জুটি বাঁধছেন আক্কি৷

কলকাতা২৪x৭য়ের পক্ষ থেকে অক্ষয়কে জন্মদিনের অনেক শুভেচ্ছা৷

সংশ্লিষ্ট খবর

জিৎ এর টার্গেট এখন বাংলাদেশ

  ৯, জানু ২০১৬  |    2166

বাংলার বউ সমাচার , শ্রেনী বিন্যাশ

  ২, সেপ্টে ২০১৪  |    1537