ওয়ান্ডার ওম্যান এবার ফ্লপ ‘ডিসি’কে টেনে তুলতে পারে দেখুন (ভিডিওসহ)

  ৩১, মে ২০১৭  |    হলিউড  |    264

হিপোলিটা

মেয়েদের সুপারহিরো করলে নাকি ছেলেরা সেই ছবি দেখে না? এ রকমই তর্ক শুরু হয়েছিল, যখন ‘ওয়ান্ডার ওম্যান’এর মুক্তির কথা ঘোষণা হয়। সেই কথাটা ভুল প্রমাণ করতে পারবে এই ছবি? শুক্রবার মুক্তি পাচ্ছে ‘ওয়ান্ডার ওম্যান’। কেন দেখা উচিত, বলে দিচ্ছে ‘ওবেলা’।
কীভাবে পৃথিবীতে এল ওয়ান্ডার ওম্যান? ট্রেলার দেখে এতদিনে নিশ্চয়ই এই প্রশ্নটা বার বার মনে জেগেছে। কেন ওয়ান্ডার ওম্যান পৃথিবীতে এল? তার কী প্রয়োজন? সে কী করবে? আসলে এই অরিজিন স্টোরিটাই ছবিটা দেখতে যাওয়ার একটা কারণ। যেমনভাবে সুপারম্যান, ব্যাটম্যান, স্পাইডারম্যানদের গল্প আমরা জেনেছি, ঠিক সেভাবেই ওয়ান্ডার ওম্যানের ব্যাকস্টোরিও জানতে হবে বইকী।
‘ডিসি’র রক্ষাকর্তা
‘ব্যাটম্যান ভার্সেস সুপারম্যান’এর মতো বহু প্রতীক্ষিত ছবি ফ্লপ করলেও ওয়ান্ডার ওম্যানকে দর্শক ভোলেননি। একমাত্র ওই চরিত্রটাই ‘ডিসি’র ক্রমশ জনপ্রিয়তা কমতে থাকা রুখে দিতে পারে। স্ক্রিন টাইমের নিরিখে বিচার করলে গাল গাডোট খুব কম সময়ই পেয়েছিলেন। তবে ওইটুকু সময়ই যথেষ্ট। নাহলে কেনই বা তাঁকে নিয়ে সোলো ছবি করার কথা ভাববেন নির্মাতারা!
‘কুল’ সুপারহিরো
‘ডিসি কমিক্‌স’ যাঁরা পড়েন, তাঁদের মতে ওয়ান্ডার ওম্যান হচ্ছে সবচেয়ে ‘কুল’ মহিলা সুপারহিরো। কিন্তু মজার ব্যাপার হল, ‘ডিসি’ এতদিন সেটা নিয়ে ভাবেইনি। এত শক্তিশালী মহিলা চরিত্রকে প্রোমোটই করেনি তারা। প্রাক্তন মিস ওয়ার্ল্ড লিন্ডা কার্টার প্রথম চরিত্রটা করেছিলেন। দর্শকের মনে সেই ছবিটা এখনও রয়ে গিয়েছে। অথচ এতগুলো ব্যাটম্যান, সুপারম্যান হয়ে যাওয়ার পর শেষে ওয়ান্ডার ওম্যানকে নিয়ে ছবি। যেটা উত্সাহ আরও বাড়িয়ে দিয়েছে দর্শকের। এবার একটা ওয়ান্ডার ওম্যান ফ্র্যাঞ্চাইজি হলে মন্দ কী! গাল গা়ডোট’কে তো পাওয়াই গিয়েছে।
পিরিয়ড ফিল্ম
সুপারহিরো ছবি হলেও, ‘ওয়ান্ডার ওম্যান’ পিরিয়ড ফিল্মও। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময়টা তুলে ধরা হয়েছে ছবিতে। তখনকার সময়, তখনকার মানুষ, তাদের পোশাক, কথা বলার ধরন সবকিছুই এ ছবিতে থাকছে।
ডায়ানা প্রিন্স
ডায়ানা প্রিন্স ওরফে ওয়ান্ডার ওম্যান নাকি ঈশ্বরের বংশজ। স্বর্গের কোনও এক জাতির বংশোদ্ভূত। সেখান থেকে কেন সে পৃথিবীতে এল, কীভাবে ডায়ানা প্রিন্স থেকে ওয়ান্ডার ওম্যান হয়ে পৃথিবীতে লড়াই করতে শুরু করল, সেই গল্পটা দেখতে যাবেন না? তার তলোয়ারবাজিটা ট্রেলার দেখার পর থেকেই মনকেমন করে দিয়েছে যে…!

নজরে হিপোলিটা
ডায়ানার মা হিপোলিটা, যে দেবতা। বাবা জিউস, যে মানুষ। ওয়ান্ডার ওম্যান সেদিক থেকে দেখতে গেলে ডেমিগড! সে মানুষও, আবার দেবতাও। চিত্রনাট্যে সেই ডায়লেমা থাকবে বলেই আশা করা যায়। এবার অন্তত ডিসি’র মহিলা চরিত্রচিত্রণে বিশ্বাস রাখা চলে। কারণ হার্লে কুইনের চরিত্রটা মারাত্মক সফল। কোনি নিয়েলসন হিপোলিটার চরিত্রে। ‘গ্ল্যাডিয়েটর’, ‘ডেভিল’স অ্যাডভোকেট’এ অভিনয় করেছেন কোনি। ছবির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র।

দেখতে হবে ক্রিস পাইনকে
ক্রিস পাইনও একটা বাড়তি কারণ, ‘ওয়ান্ডার ওম্যান’ দেখতে যাওয়ার। নব্বইয়ের দশকের হিট ছবি ‘লাইফ সাইজ’এ ক্রিসের পারফরম্যান্স এখনও মনে আছে দর্শকের। ‘প্রিন্সেস ডায়েরিজ টু’, ‘জাস্ট মাই লাক’এর মতো ছবিতে ক্রিস অনবদ্য। তাঁর কমিক টাইমিংটা এই ছবিতেও দেখতে পাবেন নিশ্চয়ই। স্টিভ ট্রেভরের চরিত্রে ক্রিস।

 

  • ওয়ান্ডার ওম্যান কমিক্‌সে বাইসেক্সুয়াল চরিত্র। গাল গাডোট অবশ্য বলেছেন, এ ছবিতে ওয়ান্ডার ওম্যানের অন্য মেয়েদের প্রতি টান থাকলেও, তার পিছনে কারণ রয়েছে।
  • ২০০৫’এ ‘ইলেকট্রা’র পর এটাই পুরোপুরি ‘ফিমেল-ডমিনেটেড’ সুপারহিরো ছবি। ২০০৫’এই অ্যাঞ্জেলিনা জোলিকে দেওয়া হয়েছিল ওয়ান্ডার ওম্যান হওয়ার সুযোগ। ২০১৫’তে তাঁকেই আবার বলা হয়েছিল ছবিটা পরিচালনা করতে।
  • কেট বেকিনসেল, স্যান্ড্রা বুলক, জেসিকা বিয়েল, ক্রিস্টেন স্টুয়ার্টকেও এই চরিত্রে ভাবা হয়েছিল। বাজি মারলেন গাল গাডোট।
  • ডিজাইনার লিন্ডি হেমিং বলেছেন, ‘‘আমি চেয়েছিলাম, ওয়ান্ডার ওম্যানকে একই সঙ্গে যোদ্ধা এবং সুন্দরী দুটোই দেখাক।’
  • ছবিতে তাঁর চরিত্রটা গ্রিক হলেও গাল গাডোটের জন্ম ইজরায়েলে। জিউইশ ইউরোপিয়ান বংশোদ্ভূত তিনি।

 

সংশ্লিষ্ট খবর

নিলামে পল ওয়াকারের গাড়ি

  ২৫, এপ্রি ২০১৫  |    645

মা হয়েছেন স্কারলেট

  ৫, সেপ্টে ২০১৪  |    248