বাজারে বাপ্পা মজুমদারের রবীন্দ্র সঙ্গীতের অ্যালবাম

  ১৩, এপ্রি ২০১৫  |    Online Desk, ডেস্ক রিপোর্ট, মিডিয়াকথা  |    1027

 

প্রথমবারের মতো রবীন্দ্রসংগীতের পূর্ণাঙ্গ অ্যালবাম প্রকাশ করেছেন নন্দিত গায়ক, সুরকার ও সংগীত পরিচালক বাপ্পা মজুমদার। অ্যালবামটির নাম ‘বেঁধেছি আমার প্রাণ’। ১২ এপ্রিল সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি রেস্টুরেন্টে অ্যালবামটির মোড়ক উন্মোচন করা হয়। এতে বাপ্পা মজুমদার ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন নাট্য ব্যাক্তিত্ব শংকর সাঁওজাল, সংগীত পরিচালক পার্থ মজুমদার, জিরোনা বাংলাদেশ প্রাঃ লিমিটেড ও এমকে গ্রুপের চেয়ারম্যান মতিউর রহমান, জিরোনা বাংলাদেশ লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর শুভজিৎ রায়, ব্র্যাক ব্যাংকের হেড অব কমিউনিকেশন অ্যান্ড সার্ভিস কোয়ালিটি জারা জেবিন মাহবুব, গান বাংলা টেলিভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কৌশিক হোসেন তাপস’সহ অনেকে। অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনা করেন হাসান আবিদুর রেজা জুয়েল।
ব্র্যাক ব্যাংক নিবেদিত ‘বেঁধেছি আমার প্রাণ’ অ্যালবামটি প্রকাশ করছে জিরোনা বাংলাদেশ। এতে গান রয়েছে ৮টি। গানগুলোর শিরোনাম ‘আমার পরাণ যাহা চায়’, ‘আমি চিনি গো চিনি’, ‘তুমি কোন কাননের ফুল’, ‘ভালবেসে সখী’, ‘এমন দিনে তারে বলা যায়’, ‘আমি তোমার সঙ্গে বেঁধেছি’, ‘পরনো সেই দিনের কথা’ এবং ‘মনে দি দ্বিধা’। নতুন করে গানগুলোর সংগীতায়োজন করেছেন বাপ্পা মজুমদার নিজেই।
অ্যালবামটি প্রসঙ্গে বাপ্পা মজুমদার বলেন, ‘বিভিন্ন সময় অনেক শিল্পীর রবীন্দ্রসংগীতের সংগীতায়োজন করেছি। আমার নিজেরও অনেক দিনের ইচ্ছা ছিল রবীন্দ্রনাথের গান নিয়ে পূর্ণাঙ্গ একটি অ্যালবাম বের করার। এবার সেটা করতে পেরে খুব ভালো লাগছে। চেষ্টা করেছি মূল সুরের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে গানগুলো গাওয়ার। সংগীতায়োজও করেছি খুব যত্ন নিয়ে। বাকীটা শ্রোতারাই বিচার করবেন।’
বাপ্পা আরো বলেন, ‘আমার মায়েরও খুব ইচ্ছা ছিল আমি যেনো একটি রবীন্দ্রসংগীতের অ্যালবাম করি। উনি বেঁচে থাকলে অনেক খুশি হতেন। অ্যালবামটি আমি বাবা-মা দুজনকে উৎসর্গ করেছি।’
ইতিমধ্যে বিশ্বের ২১০টি দেশের ৭৫০টি পোর্টালে অ্যালবামটি পাওয়া যাচ্ছে। বাংলাদেশে শুধুমাত্র গ্রামীনফোন ও রবি নাম্বার থেকে ৩৩৩৩ ডায়াল করে গানগুলো শোনা যাচ্ছে। আগামী ১৮ই এপ্রিল থেকে সারা দেশে অ্যালবামটি পাওয়া যাবে বিশেষভাবে রকমারী ডট কম এবং দেশালের সবগুলো শোরুমে।
উল্লেখ্য, গত বছরের ১৬ জুলাই জিরোনা বাংলাদেশ থেকে প্রকাশ পায় বাপ্পা মজুমদারের দশম একক অ্যালবাম ‘জানি না কোন মন্তরে’। এরপর কলকাতা থেকেও অ্যালবামটি প্রকাশ পায়।

 

সংশ্লিষ্ট খবর